সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ০৮:১৩ পূর্বাহ্ন

তাড়াশে খেলার মাঠের জন্য মানববন্ধন

গোলাম মোস্তফা, নিজস্ব প্রতিবেদক:
  • Update Time : শনিবার ৭ মে, ২০২২
  • ৫২৩ বার পঠিত

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে বারুহাস ইউনিয়নের সাচানদিঘী গ্রামের প্রায় নয় বিঘা আয়তনের একটি খেলার মাঠ দখলমুক্ত করার দাবিতে মানববন্ধন করেছেন ঐ গ্রামের মানুষজন। (৭ মে) শনিবার দুপুরে খেলার মাঠের মধ্যে তারা এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন। এতে আরো অংশ নেয় আশপাশের গ্রামের তরুণরা।
সাচানদিঘী গ্রামের রনি, হাসিনুর, সাগর, সবুর, সাইফুল, নাজমুল, শাকিল, শিহাব, রাকিব ও আলিম বলেন, আমাদের সাচানদিঘী খেলার মাঠে তরুণদের পাশাপাশি গ্রামের শিশু-কিশোররা খেলাধূলা করেন। মাঝে মধ্যে নিকটতম বিনোদপুর ও সান্দুরিয়া গ্রামের তরুণরাও আমাদের মাঠে ফুটবল ও ক্রিকেট খেলতে আসেন। কিন্তু আমাদের গ্রামের মৃত আব্দুস ছাত্তারের ছেলে প্রভাবশালী ব্যক্তি সাইদুর ইসলাম, মোজদার হোসেন ও সুলতান আহমেদ খেলার মাঠের জায়গা অবৈধভাবে দখল করার চেষ্টা করছেন। এরই মধ্যে তারা মাঠের উত্তর পাশে মাটি ফেলে বসতঘর করেছিলেন। পরে স্থানীয় সাংসদ অধ্যাপক ডা. মো. আব্দুল আজিজের হস্তক্ষেপে প্রশাসন তা উচ্ছেদ করে দেন। একই সাথে মাঠের সীমানা নির্ধারণ করে পিলার পুঁতে দেন।
ভুক্তভোগীরা আরো বলেন, সাচানদিঘী খেলার মাঠ দখলমুক্ত করে দেওয়ার জন্য ঐ তিনজন ব্যক্তিকে সরকারিভাবে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। এরপরও তারা মাঠের জায়গা অবৈধ দখলে রেখেছেন। খেলার মাঠের মধ্যের মাটি এখনো সরিয়ে নেয়নি। বরং সেই জায়গাতে ইউক্যালিপটাস গাছ রোপন করে রেখেছেন। নতুন করে মাঠের এক কোণার বেশ খানিকটা জায়গা গর্ত করে পকুরের মতো করে ফেলেছেন।
সাচানদিঘী গ্রামের প্রধান আবু বক্কার, আনিছুর রহমান ও শাহজাহান আলী বলেন, সাচানদিঘী খেলার মাঠের পাশের খেতের মালিকরাও মাঠের কিছু জায়গার অবৈধ দখল নিয়েছিলেন। পরে তারা নিজে থেকেই তা মুক্ত করে দিয়েছেন। কিন্তু সাইদুর ইসলাম, মোজদার হোসেন ও সুলতান আহমেদ কোন কিছুর তোয়াক্কা না করে খেলার মাঠের ক্ষতি করে চলেছেন। খেলার মাঠ দখলমুক্ত করা না গেলে নেশা ও মোবাইলে আসক্ত হওয়া থেকে অধিকাংশ শিশু-কিশোর ও তরুণদের ফেরানো সম্ভব নয়।
বিনোদপুর গ্রামের রুহুল আমীন, রাশিদুল ইসলাম, এনামুল হোসেন, রাশিদুল ইসলাম ও সান্দুরিয়া গ্রামের আলামিন হোসেন, মারুফ হোসেন, শিহাব উদ্দিন বলেন, আমাদের গ্রামে বড় খেলার মাঠ নাই। ফলে সুষ্ক মৌসুমে খেলাধূলা করার জন্য সাচানদিঘী খেলার মাঠে আসি।
বারুহাস ইউনিয়ন পরিষদের (১নং সাচানদিঘী ওয়ার্ড) ইউপি সদস্য বিপ্লব হোসেন বলেন, ২ একর ৭৪ শতাংশ সাচান দিঘী খেলার মাঠের নামে রেকর্ডীয় জায়গা। কতিপয় প্রভাবশালী ব্যক্তি তা অবৈধ দখলের জন্য মরীয়া হয়ে উঠেছেন। দখলমুক্ত করে শিশু-কিশোর ও তরুণদের মাঠে ফেরানো প্রয়োজন।
এ প্রসঙ্গে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) লায়লা জান্নাতুল ফেরদৌস বলেন, দ্রুততম সময়ের মধ্যে সাচানদিঘী খেলার মাঠ দখলমুক্ত করার জন্য সব ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

 

Please follow and like us:

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..