বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১২:৪৭ পূর্বাহ্ন

News Headline :
তাড়াশে সদ্য যোগদানকৃত শিক্ষা অফিসার ও নিয়োগপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষকদের বরণ অনুষ্ঠান তাড়াশে ২ হাজার শীতার্তদের মাঝে এমপি আজিজের কম্বল বিতরণ বাল্যবিবাহ বন্ধ করতে রাতে বিয়ে বাড়িতে ইউএনও তাড়াশে ৭০লিটার দেশীয় চোলাই মদসহ একজন আটক তাড়াশে শিক্ষার্থীদের রাস্তায় সুরক্ষার জন্য স্পিড ব্রেকার দিলেন ছাত্রলীগ তাড়াশে নবীন বরণ অনুষ্ঠানে ব্যানারে বঙ্গবন্ধুর ছবি না থাকায় অনুষ্ঠানে আসেননি চেয়ারম্যান ফেসবুকে মিথ্যা অপপ্রচার করায় প্রতিবাদ ২৬ দিনেও তদন্ত শেষ হয়নি, উদ্ধার হয়নি আট লক্ষাধিক টাকার ওষুধ তাড়াশে এক দিনের ব্যবধানে আরেকজন স্কুল ছাত্রীর বাল্যবিয়ে বন্ধ করলেন ইউএনও রাজশাহীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভা সফল করার লক্ষ্যে তাড়াশে যৌথ কর্মীসভা

করোনা পরিস্থিতিতে ঈদের বাজারে ভিড়

সময়ের সংবাদ ডেস্ক
  • Update Time : শুক্রবার ২২ মে, ২০২০
  • ২৬১ বার পঠিত

কিশোরগঞ্জ:

সাড়া দেশে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা নামক ভাইরাস। আর এই ভাইরাসকে মোকাবিলা করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী অনেক ধরনের সতর্কতা অবলম্বন করেছেন। এবং সাথে সাথে দেশের সকল জায়গায় করে দিয়েছেন লক ডাউন। মানুষ হয়েছে কর্মহীন ও কেটে খাওয়া মানুষ হয়েছে গৃহবন্দী। আর এখন তারই সাথে চলে এসেছে আমাদের পবিত্র ঈদুল ফিতর। বাংলাদেশ বিশ্বের মধ্যে ইসলামী একটি দেশ নামে পরিচিত। এই ঈদুল ফিতর মুসলসানদের সংস্কৃতি। তারা এই ঈদকে কেন্দ্র করে অনেক আনন্দ, উল্লাস ও পূর্তি করে থাকেন। তাঁরা বিলাসিতার মধ্যমে এই দিনটি পাড় করে থাকেন প্রতি বছরই কিন্তু এ বছর একটু ভিন্ন, করোনার জন্য মানুষ হাট বাজার করতে পারছেনা এবং তাদের বিলাসিতার জন্যে মার্কেট করতে পারছে না, এই করোনা পরিস্থিতিকে মোকাবিলা করার জন্য। সকল দেশে করে দেওয়া হয়েছে লক ডাউন, কিন্তু এই ঈদের জন্যে মানুষ কিছুতেই তা মানছে না। তাঁরা একের পর এক বাজারে চলছেই সরকারের আইন শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে। কিন্তু এ অবস্থায় প্রসাশনও পারছে না তাদের কে থামাতে। তাই সরকারি প্রসাশন গুলো বাধ্য হয়ে খুব সতর্কতার সাথে তাঁরা জনগণকে ঈদের বাজার করার অনুমতি দিয়েছেন। কিন্তু জনগণ কিছুতেই তাঁরা সতর্কতা অবলম্বন করছেন না এবং সরকারি নিয়মের কোনো দূরত্ব বজায় রাখেন না। তাই বাজারের মধ্য পড়েছে প্রচুর ভিড়। এই পরিস্থিতিতে মানুষ খুবই হুমকি ও আতঙ্কে শিকার হতে পারে।

বিভিন্ন রাজনীতিবিদ ও মানবতা কর্মীগণ বলেছেন যে, আমারা প্রতি বছরই এই আনন্দ উল্লাস করতে পারবো তাই আমরা একান্তভাবে নিজেই নিজেকে নিরাপদ রাখি ও অন্যেকে নিরাপত্তা দেই। বেঁচে থাকলে একটি ঈদ জীবনে আরও আসতে পারে কিন্তু আমরা কেউ যদি করোনায় আক্রান্ত হই তাহলে আমরা অনেক হুমকি ও আতঙ্কে শিকার হতে পারি এবং তার সাথে মৃত্যুও হতে পারে।

Please follow and like us:

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..