মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১১:১৬ অপরাহ্ন

News Headline :
তাড়াশে সদ্য যোগদানকৃত শিক্ষা অফিসার ও নিয়োগপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষকদের বরণ অনুষ্ঠান তাড়াশে ২ হাজার শীতার্তদের মাঝে এমপি আজিজের কম্বল বিতরণ বাল্যবিবাহ বন্ধ করতে রাতে বিয়ে বাড়িতে ইউএনও তাড়াশে ৭০লিটার দেশীয় চোলাই মদসহ একজন আটক তাড়াশে শিক্ষার্থীদের রাস্তায় সুরক্ষার জন্য স্পিড ব্রেকার দিলেন ছাত্রলীগ তাড়াশে নবীন বরণ অনুষ্ঠানে ব্যানারে বঙ্গবন্ধুর ছবি না থাকায় অনুষ্ঠানে আসেননি চেয়ারম্যান ফেসবুকে মিথ্যা অপপ্রচার করায় প্রতিবাদ ২৬ দিনেও তদন্ত শেষ হয়নি, উদ্ধার হয়নি আট লক্ষাধিক টাকার ওষুধ তাড়াশে এক দিনের ব্যবধানে আরেকজন স্কুল ছাত্রীর বাল্যবিয়ে বন্ধ করলেন ইউএনও রাজশাহীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভা সফল করার লক্ষ্যে তাড়াশে যৌথ কর্মীসভা

ভূরুঙ্গামারীতে কলেজ শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীর সাথে অনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের অভিযোগ

সময়ের সংবাদ ডেস্ক
  • Update Time : বুধবার ২০ মে, ২০২০
  • ৩২০ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে মহিলা কলেজের এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ছাত্রীর সাথে অনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গত ২৭/০৪/২০২০ইং তারিখে প্রতারণার শিকার ঐ ছাত্রী বিচার চেয়ে কলেজ অধ্যক্ষের কাছে একটি অাবেদন করেন। কিন্তু অধ্যক্ষ সাহেব এবিষয়ে কোন কার্যকর পদক্ষেপ না নেয়ায় নিরুপায় হয়ে উক্ত ছাত্রী গত ১২/০৫/২০২ইং তারিখে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর পূনরায় অভিযোগ দাযের করে।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, ভূরুঙ্গামারী মহিলা কলেজের খন্ডকালীন ইংরেজি শিক্ষক হাবিবুল্লাহ খোকন উক্ত খলেজের প্রথম বর্ষের এক ছাত্রীকে প্রাইভেট পড়ানোর নাম করে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তার সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন এবং উক্ত ছাত্রীকে তার সাথে অনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনে বাধ্য করেন । এক্ষেত্রে তাকে সাহায্য করেন একই কলেজের দর্শণ বিভাগের প্রভাষক মোজাম্মেল হক মিলু।

মেয়েটি হাবিবুল্লাহ খোকনকে বিয়ের জন্য চাপ দিলে বিভিন্ন তালবাহানায় বিষয়টি সে এড়িয়ে যেতে থাকে।

প্রতারিত মেযেটি জানায়, এসময় খোকনের পক্ষে তার সহকর্মী মোজাম্মেল হক মিলু কিছু টাকা-পয়সার বিনিময়ে বিষয়টি মিটমাট করার প্রস্তাব দেয়। তাতে রাজি না হওয়ায় মেয়েটির কাছে থাকা বিভিন্ন প্রমাণাদি হাবিবুল্লাহ খোকন কৌশলে বিনষ্ট করে দেয় এবং নানাভাবে হুমকি দিয়ে মেয়েটির সাথে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। পরবর্তীতে অনেক চেষ্টার পর মেয়েটি উক্ত শিক্ষকের সাথে সাময়িক যোগাযোগ করতে সক্ষম হয় এবং এই সময়ের কথোপকথনের কিছু অংশ অডিও রেকর্ড করে রাখে যা মেয়েটির সাথে উক্ত শিক্ষকের অনৈতিক সম্পর্ক প্রমাণ করার জন্য যথেষ্ট।

এদিকে অভিযুক্ত হাবিবুল্লাহ খোকনের মতামত নিতে তার প্রাইভেট সেন্টারে গেলে সেখানে ১৫জন ছাত্রীসহ তাকে অবস্থান করতে দেখা যায়।

করোনাকালে স্বাস্থ্যবিধি ভঙ্গ করে এরুপ গণজমায়েতের কারণ জানতে চাইলে, তিনি কোন সদুত্তর দিতে পারেননি। এসময় তার হাতে থাকা কাগজটি নিয়ে দেখা যায়, তিনি উক্ত ছাত্রীদেরকে ডেকে এনে তার বিরুদ্ধে অানীত অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণের জন্য গভর্নিং বডির সভাপতি বরাবর তার নিজের লেখা একটি সাফাই অাবেদনে তার পক্ষে উক্ত ছাত্রীদের স্বাক্ষর নিচ্ছেন।

এ ব্যাপারে অধ্যক্ষ খালেদুজ্জামান বলেন, এরকম একটি অভিযোগ পেয়েছি এবং অভিযুক্ত শিক্ষককে কারণ-দর্শানোর নোটিশ দিয়েছি, আগামী ০৩/০৬/২০ তারিখে গর্ভানিং বডির মিটিং-এ এবিষয়ে চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফিরুজুল ইসলাম অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এবিষয়ে অাইনানূগ ব্যবস্থা নেয়ার জন্য অফিসার ইনচার্জ, ভূরুঙ্গামারী থানাকে বলা হয়েছে।

Please follow and like us:

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..