মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১১:০৮ অপরাহ্ন

পকেট মারতেই হজে যায় তারা!

admin
  • Update Time : শনিবার ৩ আগস্ট, ২০১৯
  • ৯৩ বার পঠিত

সময়ের সংবাদ:

দশ মাস দেশে চুরি-ছিনতাই করে পেট চলে, এরপর দুই মাসের জন্য সুদূর সৌদি আরবে হজে চলে যান তারা। তবে উদ্দেশ্য ভিন্ন। সেখানে গিয়েও হাজিদের পকেট কেটে ডলার, পাউন্ড, রিয়াল হাতিয়ে নেন তারা। এমনই একটি চক্রের ৬ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি উত্তর)।

hajj chitter

গত শনিবার রাজধানীর বিমানবন্দর এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানান ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) মহরম আলী। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে বিমানবন্দর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে।

গোয়েন্দাদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃতরা এইসব তথ্য দেয়। পরে পুলিশ সাংবাদিকদের এসব বিস্তারিত জানান।

গ্রেপ্তারকৃত ছয় জন হলেন— সুমন ভুইয়া ওরফে সোমা (৩৬), মাসুদুল হক ওরফে আপেল (৪২), রুহুল কুদ্দুস (৪৮), লাবু মিয়া (৩২), জাহিদুল ইসলাম ওরফে জাহিদ (২৮), দুলাল মোল্লা (৫০)।

তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে চক্রের পলাতক আরও ৬ জনের নাম পাওয়া গেছে। তারা হলো- সজিব (৩০), ওমর (৩২), শহিদুল্লাহ (৩০), তাজু (৩৫), তুলু (৩৬) ও জামাল। তাদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে বলে জানিয়েছে ডিবি।

স্বীকারোক্তিতে গ্রেপ্তারকৃতরা জানান, দেশে সাধারণত বিমানবন্দরে আসা যাত্রীদের আত্মীয়-স্বজনদের টার্গেট করে চুরি, ছিনতাই ও পকেট মারতো তারা। এই কাজ চলতো বছরের দশ মাস। এরপর হজের সময় এলেই তিন লাখ টাকা খরচ করে সৌদি চলে যেতেন। সেখানে গিয়ে হাজীদের পকেট কেটে প্রত্যেকে ১০ থেকে ১৫ লাখ টাকা নিয়ে দেশে ফিরে আসতেন।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (উত্তর) উপ-কমিশনার মশিউর রহমান বলেন, হজের মৌসুমে যারা হজে যাচ্ছেন এবং সবসময়ই যারা ঢিলেঢালা পোশাক পরেন তাদের বেশি সতর্ক থাকা উচিৎ। এই প্রতারকরা এদেরকেই টার্গেট করে থাকে।

Please follow and like us:

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..