শনিবার, ০২ Jul ২০২২, ০৩:০২ পূর্বাহ্ন

News Headline :
তাড়াশে দলিলকৃত জায়গা জোরপূর্বক দখল করার অভিযোগ পদ্মা সেতু দেখতে গেছেন স্বামী, বউ-শাশুড়িকে প্রেমিকের সঙ্গে ধরলেন জনতা প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে তাড়াশে মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের মিলন মেলা অনুষ্ঠিত পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে তাড়াশে আনন্দ মিছিল ও মিষ্টি বিতরণ তাড়াশে আওয়ামীলীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত তাড়াশে মাদক সেবন করে মাতাল অবস্থায় ছাত্রদলের নেতা আটক তাড়াশে আওয়ামীলীগের বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত অসুস্থ তফেরের পাশে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন খাঁন সারাদেশে বিএনপির অরাজকতার সৃষ্টির প্রতিবাদে তাড়াশে ছাত্রলীগের বিক্ষোভ মিছিল

তাড়াশে পুকুরে বিষ প্রয়োগে মাছ মারার অভিযোগ

admin
  • Update Time : মঙ্গলবার ১৪ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ১৭১ বার পঠিত

তড়াশ (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি:
সিরাজগঞ্জ তাড়াশে একটি পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে ৩ লাখ টাকার মাছ মারার অভিযোগ উঠেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) রাতে উপজেলার মাগুড়া বিনোদ ইউনিয়নের নাদোসৌদপুর গ্রামের বাহিরপাড়ার মৎস্য চাষী রওশন আলীর পুকুরে। বিষ প্রয়োগে পুকুরের প্রায় ৩ লাখ টাকার মাছ মরে ভেসে উঠেছে। এই মাছ মারার অভিযোগ ওই গ্রামের শুকুর জমিদারের ছেলে সাদ্দাম হোসেনের বিরুদ্ধে।

মৎস্য চাষী রওশন বলেন , প্রায় ৩ বিঘা এই পুকুর থেকে বর্ষার পর বছরে ৩-৪ লক্ষ টাকার মাছ বিক্রি করি। এবারও এই পুকুরে মাছ ধরার জন্য দুদিন ধরে মেশিন দিয়ে পানি কমিয়েছি।পুকুরে দেশীয় বিভিন্ন জাতের মাছ ছিলো।কিন্তু  সোমবার রাতে পুকুর দেখতে গিয়ে পুকুরের মাছ মরে ভেসে উঠেছে। সকালে দেখা যায় পুকুরে বিষ প্রয়োগের কারণেই সব মাছ মরে ভেসে উঠেছে। তার অভিযোগ, সাদ্দাম হোসেন পুকুরে বিষ দিয়ে মাছ মেরেছে। এবছরে বন্যার সময় সাদ্দামকে এই পুকুরের ধারে কারেন্ট জাল দিয়ে মাছ ধরার বাঁধা দেই। সেজন্যই শত্রুতা করে আমার এতো বড় ক্ষতি করেছে।  তিনি আরো বলেন, সে যে বিষ প্রয়োগ করে মাছ মেরেছে সেটা গ্রামের লোকজনের কাছে স্বীকার করেছে এবং গ্রামের লোকজনের কাছে আমি প্রমান সহ জানাইছি।

এ ব্যাপারে নাদোসৌদপুর গ্রামের মাতব্বর রফিক ও মজিবর বলেন, পুকুরে গিয়ে দেখি বিষ প্রয়োগের কারণেই সব মাছ মরেছে।বিষ প্রয়োগের বিষয়ে রওশন আমাদের কাছে বলে যে এই বিষ সাদ্দাম দিয়েছে। এতে বিভিন্ন ভাবে প্রমান করে জানা যায় যে সাদ্দাম পূর্বের শত্রুতা জের ধরে বিষ দিয়ে মাছ মেরেছে। তারপর সাদ্দামের কাছে জানতে চাইলে স্বীকারও করে যে বিষ প্রয়োগ তিনি করেছে।

তাড়াশ  থানার ভারপ্রাপ্ত (ওসি) কর্মকর্তা ফজলে আশিক বলেন, মাছ নিধনের ঘটনার কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি।অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Please follow and like us:

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..