বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৫৪ পূর্বাহ্ন

তাড়াশে নদীর জলস্রোতে বাধা, ডুবে যাচ্ছে ধান

গোলাম মোস্তফা, নিজস্ব প্রতিবেদক:
  • Update Time : বুধবার ১১ আগস্ট, ২০২১
  • ২৯১ বার পঠিত

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে ভদ্রাবতী নদীর জলস্রোতের স্বাভাবিক প্রবাহে বাঁশের বেড়া দিয়ে সোতিজাল পেতে বাধা সৃষ্টি করা হয়েছে। ফলে আবাদি জমি পানিতে তলিয়ে আমন ধান ডুবে যাচ্ছে।
মঙ্গলবার বিকেলে সরজমিনে উপজেলার তালম ইউনিয়নের তালম গ্রাম এলাকা ও উপরসিলোট গ্রাম এলাকার বিস্তীর্ণ মাঠে মাঠে এরকোম চিত্র দেখা গেছে। ইতোমধ্যে এসব মাঠের বেশকিছু জমির ধান সম্পূর্ণ পানিতে ডুবে গেছে।


তালম গ্রামের কৃষক আব্দুস সবুর, আলমগীর হোসেন, আব্দুল বারিক ও আবুল বাশার বলেন, রানীহাট থেকে বারুহাস পর্যন্ত ভদ্রাবতী নদীর বেশ কয়েকটি স্থানে বাঁশের বেড়া দিয়ে সোতিজাল পেতে রেখেছেন প্রভাশালী ব্যক্তিরা। এ কারণে উজানের বৃষ্টির পানি তালম গ্রামের নগরপাড়ার পাশাপাশি দুটি সেতু দিয়ে বিস্তীর্ণ মাঠের আবাদি জমির মধ্যে ঢুকে পড়ছে। এরপর সেই পানি তালম-নগরপাড়া গ্রামীণ সড়কের বটতলা মোড়ের কালভার্টে আটকে যাচ্ছে।
জানা গেছে, তালম গ্রামের আকবার আলী নামে এক ব্যক্তি কালভার্টের মুখে পাড় বেধে অবৈধ পুকুর খনন করেছেন। এতে তালম ও উপরসিলোট গ্রাম এলাকার কয়েকশো বিঘা জমির আমন ধান পানিতে ডুবে যাচ্ছে।
ভুক্তভোগী কৃষকেরা জানান, দ্রæততম সময়ে সোতিজাল উচ্ছেদ করা গেলে ও পুকুরের পাড় কেটে কালভার্টের মুখ মুক্ত করা হলে এখনও ধান বেঁচে যাবে। নয়তো দিনকে দিন নতুন নতুন এলাকার ধান ডুবে যাবে।
এ প্রসঙ্গে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা লুৎফুননাহার লুনা দৈনিক ইত্তেফাককে বলেন, এক থেকে দুদিনের মধ্যে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করে কৃষকের ফসল রক্ষার সর্বাত্মক চেষ্টা করা হবে।

Please follow and like us:

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..