মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ০৩:২৫ পূর্বাহ্ন

জননেত্রী শেখ হাসিনার সহায়তায় ৮ নং ওয়ার্ডে সাড়ে ৮ কোটি টাকার উন্নয়ন হয়েছে ’- মেয়র রাসেল

Md.Minhajul Islam
  • Update Time : শুক্রবার ৬ নভেম্বর, ২০২০
  • ২২৯ বার পঠিত

‘জননেত্রী শেখ হাসিনার সহায়তায় ৮ নং ওয়ার্ডে সাড়ে ৮ কোটি টাকার উন্নয়ন হয়েছে ’- মেয়র রাসেল

‘বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের মহাসড়কে দুর্বার গতিতে এগিয়ে চলেছে বাংলাদেশ। তারই ধারাবাহিতকায় জননেত্রী শেখ হাসিনার সহায়তায় এই পৌরসভায় ২০১৬ সালে ক্ষমতা গ্রহণ করে বর্তমান অবধি শুধু ৮ নং ওয়ার্ডে প্রায় সাড়ে আট কোটি টাকার উন্নয়ন হয়েছে। এর মধে অত্যাধুনিক সোলার ২ টি, সাধারণ সোলার ৫ টি, সাধারণ সড়ক বাতি ৫২ টি, উন্নয়ন সহায়তা তহবিল ও গুরুত্বপূর্ণ নগর অবকোঠামো উন্নয়নের অধীনে রাস্তা-কাভার্ট ও ড্রেনেজ ব্যবস্থা নির্মাণ,। তাই আগামীতেও। আপনারা জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্য দোয়া করবেন , আলহাজ মোঃ মকবুল হোসেনের জন্য দোয়া করবেন। আমার জন্য দোয়া করবেন। আমি যেন আপনাদের পাশে থাকতে পারি। ’ ৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ কর্তৃক আয়োজিত জনতার আদালতে দাড়িয়ে এমন করে নিজের অনুভুতি গুলি ব্যক্ত করেছেন পৌর মেয়র গোলাম হাসনাইন রাসেল। পাবনার ভাঙ্গুড়া পৌরসভার মেয়র গোলাম হাসনাইন রাসেলের চলমান ৫ বছরের সাফল্য ও উন্নয়ন নিয়ে আলোচনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয় বৃহস্পতিবার রাতে শরৎনগর সিনিয়র ফাযিল মাদ্রসা মাঠ চত্বরে। এতে সভাপতিত্ব করেন ৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি মোঃ হাসিনুর রহমান সোনা।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন জেলা পরিষদ সদস্য আসলাম আলী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ জাকির হোসেন ছবি, সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান প্রধান,সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যক্ষ সাইদুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক মোঃ রমজান আলী খান, পৌর আওয়ামীলীগ সভাপতি ওমর ফারুক রানা,উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি ইমরান হাসান আরিফসহ প্রমুখ। এর আগে ৮নং ওয়ার্ডের একাধিক সাধারণ বাসিন্দা পৌর মেয়রের বিগত সফলতার বিভিন্ন দিক তুলে ধরে বক্তব্য দেন।

বক্তারা বলেন, পৌর এলাকাতে মাদকের ভয়াবহ থাবা থেকে পৌরবাসীকে বঁচাতে মাদক নির্মূল, পৌর এলাকা আলোকিতকরণ, রাস্তা নির্মাণ, পুরাতন রাস্তা সংষ্করণ, ড্রেনেজ ব্যবস্থা নির্মাণ, পৌর এলাকার বিভিন্ন স্থানে সিসি ক্যামেরা স্থাপন, ডাস্টবিন স্থাপনসহ নাগরিক সুবিধা প্রদানের ক্ষেত্রে পৌরসভার পূর্বের যে কোনো মেয়রের তুলনায় গোলাম হাসনাইন রাসেল এগিয়ে আছেন। তিনি মহামারি করোনাভাইরাসের প্রর্দূভাবের সময় নিজ জীবনের পরোয়া না করে পৌর এলাকায় অসুস্থ্য মানুষের খোঁজখবর নিয়েছেন এবং তাদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছেন। এছাড়াও করোনা ভাইরাসের সময় পৌরসভার প্রতিটি পরিবারে সদস্যদের নিকট তিনি বিনা মূল্যে ঔষুধ পৌচ্ছানোর ব্যবস্থা করেছিলেন। করোনা কালে কর্মহীনদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন। দক্ষতা, সততা ও বিচক্ষণতা পৌরবাসীর নিকট তার গ্রহণযোগ্যতা আরও বেড়ে গেছে বলে বক্তারা অভিমত ব্যক্ত করে আগামী পৌর নির্বাচনে আবারও তাকেই নৌকা প্রতীক প্রদান করতে বঙ্গবন্ধু কন্যা ও আওয়ামীলীগ সভানেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি তৃণমুল থেকে জোর দাবী জানানো হয়।
এসময় অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ৮নং ওয়ার্ডের দলীয় নেতাকর্মীসহ, সাধারণ নাগরিক, শিক্ষক ও সাংবাদিক বৃন্দ। এর আগে ৮ নং ওয়ার্ডে বিভিন্ন মহল্লা থেকে মিছিল নিয়ে শত শত সমর্থক সভায় যোগ দেয়।

Please follow and like us:

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..