শনিবার, ০২ Jul ২০২২, ০১:৪১ পূর্বাহ্ন

News Headline :
তাড়াশে দলিলকৃত জায়গা জোরপূর্বক দখল করার অভিযোগ পদ্মা সেতু দেখতে গেছেন স্বামী, বউ-শাশুড়িকে প্রেমিকের সঙ্গে ধরলেন জনতা প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে তাড়াশে মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের মিলন মেলা অনুষ্ঠিত পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে তাড়াশে আনন্দ মিছিল ও মিষ্টি বিতরণ তাড়াশে আওয়ামীলীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত তাড়াশে মাদক সেবন করে মাতাল অবস্থায় ছাত্রদলের নেতা আটক তাড়াশে আওয়ামীলীগের বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত অসুস্থ তফেরের পাশে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন খাঁন সারাদেশে বিএনপির অরাজকতার সৃষ্টির প্রতিবাদে তাড়াশে ছাত্রলীগের বিক্ষোভ মিছিল

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে ঢাকা জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের কুরআন শরীফ বিতরণ

শরিফ হাসান, ঢাকা জেলা দক্ষিণ প্রতিনিধি:
  • Update Time : সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ২২৪ বার পঠিত

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে দোহারে কুরআন শরীফ বিতরণ করেছে ঢাকা জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ। সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) বিকাল ৫ঃ৩০টায় দোহার উপজেলার দোহার থানার গেট সংলগ্ন রাস্তায় সমাবেশ করেন ঢাকা জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ। সভায় সভাপতিত্ব করেন মাহাবুবুর রহমান বেপারি।

মাহবুবুর রহমান বলেন, আমরা আল্লাহর কাছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীঘার্য়ু কামনা করি। জননেত্রী জন্য আমাদের দোয়া থাকবে সবসময় । তাই আজ আমরা কোরআন শরীফ বিতরণ করলাম।

দোয়া কামনা অনুষ্ঠানে মাহাবুবুর রহমান বেপারি আরও বলেন, আল্লাহ যেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আরো দীর্ঘ হায়াত দান করে । আমরা যারা স্বেচ্ছাসেবকলীগের কর্মি, তার হাতকে আরো শক্তিশালী করতে পারি সেজন্য সততা, দেশপ্রেম নিয়ে এগিয়ে যেতে পারি। সেই দোয়া কামনা করি।

সেসময় আরো উপস্থিত ছিলেন শহিদ চৌধুরী, শফিক তালুকদার, মাজহারুল ইসলাম রাকিব, মোঃ মনির হোসেন, শফিকুল ইসলাম, শেখ রুনু, অমল,লুতফর রহমান,আনোয়ার চোকদার, মান্নান, মঈনুল হক শিপন, বাপ্পি প্রমুখ।

উল্লেখ্য, ১৯৪৭ সালের এইদিনে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জন্ম গ্রহণ করেন। তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বেগম শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের প্রথম সন্তান। রাজনৈতিক পরিবারের সন্তান হিসেবে ছাত্রজীবন থেকে প্রত্যক্ষ রাজনীতির সঙ্গে জড়িত হন শেখ হাসিনা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গ্র্যাজুয়েশন ডিগ্রি লাভকারী শেখ হাসিনা তৎকালীন ছাত্রলীগের অন্যতম নেতা ছিলেন।

১৯৭৫ সালের পটপরিবর্তনের পর ১৯৮১ সালে দেশে ফিরে আওয়ামী লীগের দুঃসময়ে দলীয় প্রধানের দায়িত্ব নেন বঙ্গবন্ধুকন্যা। এরপর থেকে ৩৯ বছর ধরে নিজ রাজনৈতিক প্রজ্ঞা ও আপসহীন নেতৃত্বের মাধ্যমে দেশের অসাম্প্রদায়িক-গণতান্ত্রিক রাজনীতির মূল স্রোতধারার প্রধান নেতা হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন তিনি।
তার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ এবং অন্য রাজনৈতিক জোট ও দলগুলো ১৯৯০ সালে স্বৈরাচারবিরোধী গণআন্দোলনের মাধ্যমে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের সংগ্রামে বিজয়ী হয়। ১৯৯৬ সালে তার নেতৃত্বেই তৎকালীন বিএনপি সরকারের পতন ও তত্ত্বাবধায়ক সরকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে বিজয় অর্জন করে আওয়ামী লীগ।

Please follow and like us:

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..