সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০৫:০৫ অপরাহ্ন

News Headline :
তাড়াশে শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন পালিত তাড়াশে ছাত্রলীগ নেতা ছোটনের ধুমধামে জন্মদিন পালিত তাড়াশে এমপি আজিজের পূজা মন্ডপ পরিদর্শন তাড়াশে পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করলেন আওয়ামীলীগ নেতা শামীম সরকার তাড়াশে ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহেল বাকীর পূজা মন্ডপ পরিদর্শন। তাড়াশে শারদীয় দূর্গা পূজার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী হান্নান তাড়াশে ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থীর উঠান বৈঠক যেন জনসভায় পরিণত তাড়াশে চেয়ারম্যান প্রার্থীর উঠান বৈঠক যেন জনসভায় পরিণত তাড়াশে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সম্প্রদায়ের মানুষের মাঝে গাছের চারা বিতরণ তাড়াশে নওগাঁ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল।

পুঠিয়া দূর্গাপুরে আদেশ অমান্য করে চলছে কোচিং বানিজ্য

মোঃ-রাজিবুল ইসলাম বাবু, স্টাফ রিপোর্টারঃ-
  • Update Time : সোমবার ১০ আগস্ট, ২০২০
  • ১৩৪ বার পঠিত

রাজশাহীর দুর্গাপুরে সরকারি আদেশ অমান্য করে চালিয়ে যাচ্ছে অবাধে কোচিং বাণিজ্য। একাধিক বার সংবাদ পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হলেও টনক নড়ছেনা দুর্গাপুর উপজেলা প্রশাসনের। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মহাসীন মৃাধাকে জানালেও কোনই ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি এখন পর্যন্ত।

দেশে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় সরকার সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ কোচিং ও প্রাইভেট পড়ানো বন্ধ ঘোষণা করলেও রাজশাহীর জেলার দুর্গাপুর উপজেলায় সরকারী নির্দেশ উপেক্ষা করে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও ছাত্র কোনো প্রকার সামাজিক দূরত্ব বজায় না রেখেই নয়া কৌশলে কোচিং বাণিজ্য চালিয়ে যাচ্ছেন। নিয়মনীতির যেন কোনো তোয়াক্কাই নেই। এতে উপজেলায় করোনা সংক্রমণের মারাত্মক ঝুঁকির আশঙ্কা রয়েছে বলে স্থানীয়রা মনে করছেন।

গত ৮ ও ১০ আগষ্ট সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, এসব কোচিং সেন্টারগুলো হলো থানার পিছন পাশের দুরন্ত কোচিং সেন্টার, মহিলা কলেজ রোডে ব্যাতিক্রম কোচিং সেন্টার, দুর্গাপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে চলছে আলোকিত কোচিং সেন্টার।
সরকারী আদেশ অমান্য করে প্রশাসনের নাকের ডগায় চালিয়ে যাচ্ছে অবৈধ কোচিং বানিজ্য। সরকারের সকল ধরনের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে কোচিং সেন্টার চালু থাকায় সচেতন মহলে দেখা দিয়েছে মিশ্রপ্রতিক্রিয়া।

চিকিৎসকরা মনে করছেন এভাবে কোচিং সেন্টার চললে করোনায় আক্রান্তের ঝুঁকি রয়েছে এসব শিক্ষার্থীদের। করোনার ঝুঁকি নিয়ে কোচিং সেন্টারে আসা শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের নিয়ে উঠছে নানা প্রশ্ন। অভিবাকদের দায়িত্বে অবহেলা ও খামখেয়ালীপনা মনে করছেন সচেতনমহল। প্রশাসনের এমন উদাসীনতা দেখে উপজেলার সচেতন মানুষের মধ্যে প্রচন্ড ক্ষোভের সৃষ্ঠি হয়েছে।

রাজশাহী জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল মুঠো ফোনে জানান, এসব কোচিং সেন্টারের বিরুদ্ধে দ্রত আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Please follow and like us:

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..