মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১১:০৬ অপরাহ্ন

সাভারের হেলে পড়া পল্লী বিদ্যুৎতের খুঁটিতে প্রতিনিয়তই ঘটছে দূর্ঘটনা আতঙ্কে সাধারণ মানুষ…

সময়ের সংবাদ ডেস্ক
  • Update Time : বৃহস্পতিবার ৬ আগস্ট, ২০২০
  • ২৪৭ বার পঠিত

গোলাম সারওয়ার সজলঃ সাভার উপজেলার বনগাঁও ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড নিকরাইল এলাকায় রাস্তার পাশে পল্লী বিদুৎতের খুঁটি হেলে পড়ায় জনসাধারণ চরম দূর্ভোগ রয়েছে।প্রতিনিয়তই ঘটছে অনাকাঙ্ক্ষিত দূর্ঘটনা।ঢাকা জেলা পল্লী বিদ্যুৎ সমীতি-৩ এর কাছে বার বার ধরনা ধরেও মিলছে না কোন প্রতিকার।

জানা গেছে,গত ৩১ জুলাই দুপুরে দূর্ঘটনার শিকার হন নিকরাইল এলাকার রুবেল মিয়া(২৫),পিতা:জয়নাল আবেদীন,মাহাবুব (৪০),পিতা:দারগ আলী, রনি মিয়া(৩০),পিতা:মুক্তার মিয়া।

এবিষয়ে দূর্ঘটনার শিকার মাহাবুব জানান,গত ৩১শে জুলাই দুপুরে নৌকা দিয়ে গরু বিক্রয়ের জন্য ঢাকা গাবতলীর উদ্দেশ্যে যাওয়ার পথে দূর্ঘটনার শিকার হন।এসময় মাহাবুবসহ আরো দুই জন আহত হন।তিনি আরো জানান,দূর্ঘটনায় তার পিট, হাত,পা পুড়ে যায়।রুবেল মিয়ার বাম হাত পুড়ে যায় তিনি বর্তমানে ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি রয়েছেন।ইতিমধ্যে তার হাত কেটে ফেলা হয়েছে।এঘটনায় তার একটি গরু মারা গেছে বলে তিনি জানান।

এলাকাবাসী জানান,বিগত কয়েক বছর ধরে পল্লী বিদ্যুৎ খুঁটিটি হেলে পড়ে আছে।এ বিষয়ে নিকরাইল এলাকার ঢাকা জেলা পল্লিবিদুৎ সমীতি-৩ এর কাছে বার বার ধরনা ধরেও পাচ্ছেন না কোন প্রতিকার।প্রতিনিয়তই দূর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন অনেকে।তাদের দাবী অতিদ্রুত এর সমস্যা সমাধান করা হয়। তা নাহলে বড় ধরণের দূর্ঘটনার আশংকা করছেন তারা।

স্থানীয় মেম্বার ফিরোজ খাঁন বলেন,দূর্ঘটনার পরে এলাকাবাসীসহ স্থানীয় পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে বিষয়টি অবগত করেন।

বনগাঁও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বলেন,দূর্ঘটনার পর ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের দেখে আসেন এবং পল্লী বিদ্যুৎ অফিসকে বিষয়টি জানান, অফিস থেকে ব্যবস্থার নেওয়ার আশ্বাস দেন।

এবিষয়ে আমিন বাজার পল্লিবিদ্যুৎ অফিসের ডিজিএম নুরুল ইসলাম বলেন,দূর্ঘটনার বিষয়টি জানার পর ঐ স্থানে লাল পতাকা দিয়ে এলাকায় মাইকিং করে দেয়া হয়েছে।যেহেতু খুঁটিটি পানির মধ্যে তাই বন্যার পানি নেমে যাওয়ার পর এই সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করবেন বলে তিনি জানান।

Please follow and like us:

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..