সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ০১:৫৪ পূর্বাহ্ন

News Headline :
তাড়াশে গোপনে ম্যানেজিং কমিটি করার অভিযোগ শপথ নিলেন সিরাজগঞ্জ জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত সদস্য শরিফুল ইসলাম তাজফুল তাড়াশে সুফলভোগীদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত তাড়াশে কৃষকের মাঝে কৃষি যন্ত্রপাতি ও কৃষি উপকরণ বিতরণ  তাড়াশে ৫১তম জাতীয় সমবায় দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত তাড়াশে সরকারি খাস জায়গা অবৈধভাবে দখল করে দোকান ঘর নির্মাণের অভিযোগ কলেজ শিক্ষকের বিরুদ্ধে তাড়াশে মাধাইনগর ইউনিয়নের ৪ ও ৫ নং ওয়ার্ড যুবলীগের ত্রি- বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত তাড়াশে ৩টি ওয়ার্ড যুবলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত তাড়াশে সরকারি খাস জায়গা অবৈধভাবে দখল করে দোকান ঘর নির্মাণ জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন কার্যক্রমে বিভাগীয় শ্রেষ্ঠ হলেন তাড়াশের মাধাইনগর ইউনিয়ন পরিষদ

চাঁদপুর গল্লাক সড়কে দুঘটনার আশন্কা

সময়ের সংবাদ ডেস্ক
  • Update Time : সোমবার ২৯ জুন, ২০২০
  • ২৪৪ বার পঠিত

 

সোহাঈদ খান জিয়া, চা্ঁদপুর জেলা প্রতিনিধি।।

চাঁদপুর-চান্দ্রা-মুন্সীরহাট-গল্লাক (সিআইপি বেড়িবাঁধ) সড়ক একটি ব্যস্ততম সড়ক। ভোর হতে গভীর রাত পর্যন্ত সড়কটি যানবাহন চলাচলে ব্যস্ত থাকে। এক-দেড় বছর হয়েছে সড়কটির নির্মাণ কাজ করা হয়েছে। কিন্তু সড়কের ইচলী চৌরাস্তা হতে গল্লাক পর্যন্ত সড়কের দুপাশে স্থানে স্থানে ছোট-বড় অসংখ্য বিশালাকার গর্ত হয়ে পড়েছে। এতে করে যানবাহনগুলো দুর্ঘটনার আশঙ্কা নিয়ে চলাচল করছে। একটি গাড়ি বিপরীত দিক থেকে আসা গাড়িকে সাইড দিতে গিয়ে ভাঙ্গনকৃত স্থানে দুর্ঘটনায় পতিত হতে হয়। আর এ সকল ভাঙ্গনকৃত স্থানে স্থানীয় লোকজন গাছের ডাল অথবা লাল কাপড় টানিয়ে রেখেছে, যাতে যানবাহনগুলো সাবধানে চলাচল করে এবং দুর্ঘটনার শিকার না হয়।
স্থানীয়রা জানান, সংশ্লিষ্ট কাজের ঠিকাদার নিম্নমানের কাজ করায় সড়কের পাশ ভেঙ্গে গর্ত হয়ে গেছে। এমনকি সড়কের পাশে মাটি না ফেলে সড়ক নির্মাণ কাজ করে, যার ফলে এমন অবস্থার সৃষ্টি হয়।
সড়কের কোনো কোনো জায়গায় এমনভাবে ভেঙ্গে গেছে যে, সে জায়গা দ্রুত মেরামত করা না হলে বৃষ্টির পানি নেমে সড়ক ভেঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়বে। এতে হাজার হাজার মানুষকে দুর্ভোগে পড়তে হবে।
ক’জন সিএনজি অটোরিকশা ও অটোবাইক চালক জানান, দুর্ঘটনার আশঙ্কা নিয়ে গাড়ি চালাতে হয়। রাতের বেলায় আতঙ্কের মাঝে থাকি। গর্তের ভেতরে গাড়ি পড়ে কাত হয়ে বা সড়ক থেকে পড়ে গেলে মৃত্যু হতে পারে। যার ফলে আস্তে আস্তে গাড়ি চালাতে হয়। বিপরীত দিক থেকে আসা গাড়ির হেড লাইটের আলোতে সড়ক দেখতে না পেয়ে গাড়ি দাঁড় করিয়ে রাখি। একটি জনগুরুত্বপূর্ণ সড়কে এভাবে কি চলা যায়?
সড়কের পাশের ভাঙ্গনকৃত কিছু স্থান সড়ক বিভাগ ভরাট করলেও ভরাটকৃত স্থান পূর্বের ন্যায় হয়ে যায়। এ ব্যাপারে সওজ কর্তৃপক্ষের টেকসই পদক্ষেপগ্রহণ জরুরি বলে উক্ত সড়কে চলমান যানবাহনের ভুক্তভোগী যাত্রী ও চালকরা মনে করেন।

 

Please follow and like us:

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..