সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১২:১৬ পূর্বাহ্ন

News Headline :
তাড়াশে গোপনে ম্যানেজিং কমিটি করার অভিযোগ শপথ নিলেন সিরাজগঞ্জ জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত সদস্য শরিফুল ইসলাম তাজফুল তাড়াশে সুফলভোগীদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত তাড়াশে কৃষকের মাঝে কৃষি যন্ত্রপাতি ও কৃষি উপকরণ বিতরণ  তাড়াশে ৫১তম জাতীয় সমবায় দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত তাড়াশে সরকারি খাস জায়গা অবৈধভাবে দখল করে দোকান ঘর নির্মাণের অভিযোগ কলেজ শিক্ষকের বিরুদ্ধে তাড়াশে মাধাইনগর ইউনিয়নের ৪ ও ৫ নং ওয়ার্ড যুবলীগের ত্রি- বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত তাড়াশে ৩টি ওয়ার্ড যুবলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত তাড়াশে সরকারি খাস জায়গা অবৈধভাবে দখল করে দোকান ঘর নির্মাণ জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন কার্যক্রমে বিভাগীয় শ্রেষ্ঠ হলেন তাড়াশের মাধাইনগর ইউনিয়ন পরিষদ

আদালত খুলে দেওয়ার দাবিতে দিনাজপুরে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন

সময়ের সংবাদ ডেস্ক
  • Update Time : রবিবার ২৮ জুন, ২০২০
  • ২৪৫ বার পঠিত

 

জয়ন্ত রায় দিনাজপুর (বোচাগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ

আজ দিনাজপুরে স্বাস্থ্য বিধি মেনে ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে আইনজীবীদের জীবন-জীবিকার স্বার্থে দিনাজপুরসহ দেশের সব আদালত খুলে দেওয়ার দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে সাধারণ আইনজীবী পরিষদ।
রোববার [২৮জুন] সকালে ওই সমাবেশে সমিতির সাবেক সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক আইনজীবী পরিষদের আহ্বায়ক এ্যাডভোকেট ইউসুফ আলীর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন এ্যাডভোকেট মেহেরুল ইসলাম।
এছাড়াও বক্তব্য রাখেন, এ্যাড. রেজাউল ইসলাম রাজু প্রমুখ। এ্যাড. সোহেল ইকবাল রায়হান সঞ্চালনায় এ মানববন্ধনে শতাধিক আইনজীবী অংশগ্রহণ করে।
মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তারা বলেন, ২৬ মার্চ থেকে দেশের সব আদালতের স্বাভাবিক কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে।
গত ৩ মাস আইনজীবীরা নিয়মিত কোর্ট করতে না পারায় অধিকাংশ আইনজীবী চরম অর্থ সংকটে পড়েছেন ও বিচারপ্রার্থী জনগণের চাপ সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছেন।
এরমধ্যে সরকার ভার্চুয়াল বিচার ব্যবস্থা চালু করেছে। দেশের ৯৫ শতাংশ আইনজীবীর প্রশিক্ষণ না থাকায় ও ইন্টারনেট সুবিধার অভাবে ভার্চুয়াল কোর্টে মামলা করতে পারছেন না।
বর্তমানে করোনা পরিস্থিতির কারণে নিয়মিত কোর্ট না থাকায় সাজাপ্রাপ্ত আসামি, যাদের আপিল দায়রা জজ আদালতে ও হাইথানায় মামলা দায়ের হলেও কোর্টে মামলা দায়ের হচ্ছে না। আবার হাজতী আসামি ছাড়া অন্যরা বিচার বঞ্চিত হচ্ছে। যৌতুকের মামলাসহ অনেক সিআর মামলা কোর্টে দায়ের। পারিবারিক ও দেনমোহরের মামলাও কোর্টে দায়ের হয়। এসব মামলা করতে না পেরে অনেকে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। কোর্ট বিভাগে বিচারাধীন, তারা আইনের সুযোগ থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।
কর্মসূচিতে অংশগ্রহণকারী আইনজীবীরা অবিলম্বে শ্রম আদালত, বিদ্যুৎ আদালত, মোবাইল কোর্টের আপিলসহ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতগুলো খুলে দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন।
আগামী ৩০ জনু পর্যন্ত ভার্চুয়াল কোর্ট শেষে যেন নিয়মি আদালত চালু করা হয় এই দাবি জোরালো করতে আইনজীবীদের প্রতি আহবান জানান এ্যাডভোকেট মেহেরুল ইসলাম ।

Please follow and like us:

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..