রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:০৬ অপরাহ্ন

News Headline :
মহান বিজয় দিবস উদযাপন বাস্তবায়ন লক্ষ্যে তাড়াশে প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত তাড়াশে ৫২ বছর বয়সে এসএসসি পাশ করলেন কৃষক মতিন তাড়াশে গোপনে ম্যানেজিং কমিটি করার অভিযোগ শপথ নিলেন সিরাজগঞ্জ জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত সদস্য শরিফুল ইসলাম তাজফুল তাড়াশে সুফলভোগীদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত তাড়াশে কৃষকের মাঝে কৃষি যন্ত্রপাতি ও কৃষি উপকরণ বিতরণ  তাড়াশে ৫১তম জাতীয় সমবায় দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত তাড়াশে সরকারি খাস জায়গা অবৈধভাবে দখল করে দোকান ঘর নির্মাণের অভিযোগ কলেজ শিক্ষকের বিরুদ্ধে তাড়াশে মাধাইনগর ইউনিয়নের ৪ ও ৫ নং ওয়ার্ড যুবলীগের ত্রি- বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত তাড়াশে ৩টি ওয়ার্ড যুবলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত

ভূরুঙ্গামারীতে নিম্নাঞ্চল প্লাবিতঃ বিপাকে হাজার হাজার মানুষ

সময়ের সংবাদ ডেস্ক
  • Update Time : শনিবার ২৭ জুন, ২০২০
  • ৫৯৪ বার পঠিত

অাজিজুল হক, নিজস্ব প্রতিবেদকঃ  ভূরুঙ্গামারীতে অবিরাম বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পানিতে উপজেলার ৮ টি ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। এতে পানি বন্দী হয়ে পড়েছে নদী তীরবর্তী প্রায় কয়েকহাজার মানুষ। একদিকে করোনা ভীতি অপরদিকে বন্যা নদী ভাঙ্গনও টানা বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে জনজীবন। ঘর থেকে বেরুতে না পারায় দিন এনে দিন খাওয়া
প্রান্তিক কৃষক এবং শ্রমজীবী মানুষেরা পরিবার নিয়ে পড়েছেন বিপাকে।
প্রবল বর্ষণ ও উজান থেকে পাহাড়ী ঢল নেমে আসতে শুরু করায় নদ-নদীগুলোতে পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। একইসাথে নদী ভাঙ্গন অব্যাহত থাকার কারণে ঘর-বাড়ী সরিয়ে নেয়ার সময় পাচ্ছেনা নদী পাড়ের মানুষ।  কানায়-কানায় পরিপূর্ণ  হয়ে পড়েছে ফুলকুমার নদী। নিম্নাঞ্চল প্লাবিত করে কালজানি, গদাধর, দুধকুমার
নদীর পানি বইছে বিপদসীমার খুব কাছ দিয়ে। ডুবে গেছে নদী সংলগ্ন এলাকার প্রায় সব বীজতলা ও পাটক্ষেত। এতে মাথায় হাত পড়েছে কৃষকের।
বন্যায় শিলখুড়ি ইউনিয়নের শালঝোর, উত্তর/দক্ষিন ধলডাঙ্গা, তিলাই ইউনিয়নের দক্ষিন তিলাই, দক্ষিন ছাট গোপালপুর, সদর ইউনিয়নের নলেয়া, চরভূরুঙ্গামারী ইউনিয়নের ইসলামপুর, পাইকেরছড়া ইউনিয়নের
পাইকডাঙ্গা, পাইকেরছড়া, বঙ্গসোনাহাট ইউনিয়নের সোনাহাট ব্রীজের এপার ওপার, গনাইরকুটি বলদিয়া ইউনিয়নের, হেলোডাঙ্গা, ও আন্ধারীঝাড় ইউনিয়নের চর ধাউরারকুটির মানুষেরা নিদ্রাহীন রাত যাপন করছে । কাজে যেতে পারছে না শ্রমজীবী ও নিম্ন আয়ের
মানুষ। জীবনযাত্রা প্রায় স্থবির হয়ে পড়েছে। পানি বন্দী হয়ে পড়েছে কয়েক হাজার মানূষ।
তিলাই ইউপি চেয়ারম্যান ফরিদুল হক শাহিন শিকদার, চরভূরুঙ্গামারী ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুল হক, ও শিলখুড়ি ইউপি চেয়ারম্যান ইসমাইল হোসেন ইউসুফ সঙ্গে কথা বললে তারা জানান, অবিরাম বর্ষণে তাদের ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। যথাযথ কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছেন।
কুড়িগ্রাম আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভা:প্রা:কর্মকর্তা সুবল চন্দ্র সরকার জানান, আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত হালকা ও ভারী বৃষ্টিপাত
অব্যাহত থাকবে। এতে বড় ধরনের বন্যার আশংকা করছেন তিনি। কুড়িগ্রাম পানি উন্নয়ন বোর্ড জানিয়েছে, দুধকুমার নদীর পানি
বিপদসীমার ১৮সে:মি: উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ফিরুজুল ইসলাম ফিরোজ বলেন, আমি বন্যা কবলিত এলাকা পরিদর্শণ করে যাচ্ছি এবং যে কোন প্রতিকুল পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য প্রস্তুতি নিয়েছি।
Please follow and like us:

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..