সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১২:২৭ পূর্বাহ্ন

News Headline :
তাড়াশে গোপনে ম্যানেজিং কমিটি করার অভিযোগ শপথ নিলেন সিরাজগঞ্জ জেলা পরিষদের নবনির্বাচিত সদস্য শরিফুল ইসলাম তাজফুল তাড়াশে সুফলভোগীদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত তাড়াশে কৃষকের মাঝে কৃষি যন্ত্রপাতি ও কৃষি উপকরণ বিতরণ  তাড়াশে ৫১তম জাতীয় সমবায় দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত তাড়াশে সরকারি খাস জায়গা অবৈধভাবে দখল করে দোকান ঘর নির্মাণের অভিযোগ কলেজ শিক্ষকের বিরুদ্ধে তাড়াশে মাধাইনগর ইউনিয়নের ৪ ও ৫ নং ওয়ার্ড যুবলীগের ত্রি- বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত তাড়াশে ৩টি ওয়ার্ড যুবলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত তাড়াশে সরকারি খাস জায়গা অবৈধভাবে দখল করে দোকান ঘর নির্মাণ জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন কার্যক্রমে বিভাগীয় শ্রেষ্ঠ হলেন তাড়াশের মাধাইনগর ইউনিয়ন পরিষদ

ঠাকুরগাঁওয়ে কৃষকের ধান কেটে নিয়ে গেল গ্রাম্য পুলিশ

সময়ের সংবাদ ডেস্ক
  • Update Time : শুক্রবার ২৬ জুন, ২০২০
  • ২৯৫ বার পঠিত

আসিফ জামান, ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি :

ঠাকুরগাঁওয়ে রাতের আঁধারে কৃষকের ক্ষেত থেকে ধান কেটে নিয়ে যাওয়ার অভিযাগ উঠেছে এক গ্রাম্য পুলিশের বিরুদ্ধে।ঘটনাটি ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার আউলিয়াপুর ইউনিয়নের শাসলা পিয়ালা গ্রামে।

এ ঘটনায় বুধবার (২৪ জুন) কৃষক আইনুল ইসলাম বাদী হয়ে ঠাকুরগাঁও সদর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগে আউলিয়াপুর ইউনিয়নের গ্রাম্য পুলিশ আব্দুল কুদ্দুসকে (৪০) কে আসামী করা হয়।

অভিযোগে বলা হয়, দীর্ঘদিন ধরে কৃষক আইনুল ইসলাম শাসলা পিয়ালা গ্রামের কদমতলার পশ্চিমে ৭৫ শতক জমিতে বিভিন্ন ফসল আবাদ করে আসছিল। প্রতি বছরের মত তিনি ঐ জমিতে বোরো ধান রোপন করেন। রোপনকৃত বোরো ধান পেকেও গিয়েছে। কিছুদিনের মধ্যে কৃষক আইনুল ইসলাম ওই ধানগুলো কেটে ঘরে তুলতেন।

গত মঙ্গলবার (২৩ জুন) রাত ১০টার দিকে গ্রাম্য পুলিশ আব্দুল কুদ্দুস ধান কাটা মেশিন দিয়ে কৃষক আইনুল হকের ৭৫ শতক জমির মধ্যে ২৫ শতক জমির ধান কেটে নিয়ে চলে যায়।

কৃষক আইনুল হক বলেন, ২৫ শতক জমিতে ২০ মন ধান হয়। এর মূল্য প্রায় ৩২ হাজার টাকা। গ্রাম্য পুলিশ আব্দুল কুদ্দুস অবৈধভাবে রাতের আধারে আমার ক্ষেত থেকে ধান কেটে নিয়ে গিয়েছে। থানায় অভিযোগও করেছি। আমি চাই ঐ গ্রাম্য পুলিশের উপযুক্ত বিচার হোক।

স্থানীয় বাসিন্দা সফিকুল ইসলাম বলেন, স্থানীয় ইউপি সদস্য গৌরাঙ্গ রায়ের ছত্রছায়ায় দীর্ঘদিন ধরে গ্রাম্য পুলিশ আব্দুল কুদ্দুস এলাকায় নানা ধরনের খারাপ কাজ করে আসছে। সে মানুষের সম্পদহরন করছে, আর এর কোন বিচারও পাচ্ছেনা ক্ষতিগ্রস্ত মানুষগুলো।

মুঠোফোনে গ্রাম্য পুলিশ আব্দুল কুদ্দুসের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি কারও ধান কাটিনি। আমাকে সমাজে হেয় করার জন্য এমন অভিযোগ দেয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি তানভিরুল ইসলাম বলেন, কৃষক আইনুল ইসলাম একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। আমরা সেটি তদন্তসাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Please follow and like us:

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..