সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০১:১৩ অপরাহ্ন

News Headline :
তাড়াশে সদ্য যোগদানকৃত শিক্ষা অফিসার ও নিয়োগপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষকদের বরণ অনুষ্ঠান তাড়াশে ২ হাজার শীতার্তদের মাঝে এমপি আজিজের কম্বল বিতরণ বাল্যবিবাহ বন্ধ করতে রাতে বিয়ে বাড়িতে ইউএনও তাড়াশে ৭০লিটার দেশীয় চোলাই মদসহ একজন আটক তাড়াশে শিক্ষার্থীদের রাস্তায় সুরক্ষার জন্য স্পিড ব্রেকার দিলেন ছাত্রলীগ তাড়াশে নবীন বরণ অনুষ্ঠানে ব্যানারে বঙ্গবন্ধুর ছবি না থাকায় অনুষ্ঠানে আসেননি চেয়ারম্যান ফেসবুকে মিথ্যা অপপ্রচার করায় প্রতিবাদ ২৬ দিনেও তদন্ত শেষ হয়নি, উদ্ধার হয়নি আট লক্ষাধিক টাকার ওষুধ তাড়াশে এক দিনের ব্যবধানে আরেকজন স্কুল ছাত্রীর বাল্যবিয়ে বন্ধ করলেন ইউএনও রাজশাহীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভা সফল করার লক্ষ্যে তাড়াশে যৌথ কর্মীসভা

রাজশাহীতে কৃষি বিভাগের ব্যাপক ক্ষতি

সময়ের সংবাদ ডেস্ক
  • Update Time : বৃহস্পতিবার ২১ মে, ২০২০
  • ১৯৮ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক:

ঘূর্ণিঝড় আম্পানের প্রভাবে রাতভর রাজশাহীতে দমকা হাওয়া ও বৃষ্টি হয়েছে। এতে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে আম বাগানের। বুধবার ভোর ৬টা থেকে বৃহস্পতিবার ভোর ৬টা পর্যন্ত রাজশাহীতে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ৮১ মিলিমিটার।দমকা হাওয়ায় এখানকার প্রায় ১৫ ভাগ আম ঝরে পড়েছে।

বোরো ধানেরও ক্ষতি হয়েছে। এছাড়া ঝড়ে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে রাজশাহীর বিদ্যুৎ ব্যবস্থা। নগরী জুড়ে সারা রাতই বিদ্যুৎ ছিল না।

রাজশাহী আবহাওয়া অফিসের তথ্যমতে, আম্পানের মূল কেন্দ্র রাজশাহীতে আঘাত করেনি। তবে বুধবার সারা রাতই বৃষ্টি ও দমকা হাওয়া বয়ে গেছে। রাত ২টা ৫৫ মিনিট থেকে ২টা ৫৮ মিনিট পর্যন্ত বাতাসের সর্বোচ্চ গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ৫৯ কিলোমিটার। এই ঝড়ে রাজশাহীতে কৃষি বিভাগের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক শামসুল হক বলেন, রাতেই বিভিন্ন স্থানে খোঁজ নিয়েছি। সকালে আমরা বিভিন্ন বাগান পরিদর্শন করে দেখছি।প্রায় ১৫ ভাগ আম ঝরে পড়েছে।

এবছর রাজশাহীতে আম উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ২ লাখ ১০ হাজার মে.টন। সে অনুযায়ী প্রায় ৩১ হাজার ৫শ মে.টন আম ঝরে পড়েছে। এরই মধ্যে আম পাকতে শুরু করেছে। এ কারণে আর্থিকভাবে আম চাষিরা বড় ধরনের ক্ষতির শিকার হয়েছে। প্রায় এক কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

তিনি জানান, ঝড়ে রাজশাহীর অন্য কোনো ফসলের তেমন ক্ষতি হয়নি। মাঠে পাকা ধান আছে। সেগুলো মাটিতে শুয়ে গেছে। তবে ধান পেকে যাওয়ায় চাষিরা তা এখন কেটে নেবেন। তাই ধানের ক্ষতি হবে না। তবে কিছু ধান ঝরে যেতে পারে। মাঠের সবজির কোনো ক্ষতি হবে না।

Please follow and like us:

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..