বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:২৯ অপরাহ্ন

News Headline :
তাড়াশে পুকুর খননের প্রতিবাদে মডেল প্রেসক্লাবের মানববন্ধন তাড়াশে মডেল প্রেসক্লাবের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন তাড়াশে ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী ম্যাগনেট আঃলীগের মনোনয়ন পেয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ তাড়াশে বিজয় দিবস বাস্তবায়নের লক্ষ্যে প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত তাড়াশে ভোট কেন্দ্র পরিবর্তন না করার দাবীতে মানববন্ধন তাড়াশে স্কুলের সভাপতি হলেন আওয়ামীলীগ নেতা জহুরুল ইসলাম মাষ্টার মাটির চুলায় খড়-কুটোর রান্না তাড়াশে বাল্য বিবাহ ও ধর্ষণকে লাল কার্ড তাড়াশ উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য পদ পেলেন জিল্লুর রহমান তাড়াশ উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য হলেন সাইদুর রহমান

সাংবাদকর্মী মুবিনের আবেগ ঘন স্ট্যাটাস

সময়ের সংবাদ ডেস্ক
  • Update Time : বৃহস্পতিবার ৩০ এপ্রিল, ২০২০
  • ৪৮ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক:

নিম্নে সাংবাদকর্মী মুবিনের আবেগ ঘন স্ট্যাটাস হুবুহু দেওয়া হল:

আমরা রাজা পালং ইউনিয়নবাসী বাঁচতে চাই

একটি বিশেষ আবেদনঃ

বরাবর,
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, ওসি উখিয়া।

বিষয়: সচেতনতার অভাব।

জনাব সবিনয় নিবেদন, এই যে আমি রাজা পালং ইউনিয়েনর হাজির পাড়ার পাশ্ববর্তী এলাকা খয়রাতি পাড়ার একজন একজন সচেতন নাগরিক।

অভিভাবক হীন ২ লক্ষাধিক উখিয়া বাসীকে মরনব্যধি করোনা সংক্রমন থেকে বাচাঁতে আপনার নেতৃত্বে পুলিশ, সেনা সদস্যদের তৎপরতায় আমরা মুগ্ধ।কৃতজ্ঞ।অভিভূত।

আজ আমাদের গ্রামেরই পাশ্ববর্তী এলাকা হাজির পাড়ায় বানু বিবি , বানু বিবির ছেলে আবু তাহের ও বানু বিবির নাতির এই তিন জন

করোনা রোগী শনাক্ত হয়। ওনি আমাদের এলাকার পাশ্ববর্তী এলাকার বাসিন্দা। তারপরও আমাদের এলাকায় সাধারণ জনগন আগের মত স্বাভাবিক ভাবে চলাফেরা করতেছে। কোন সতর্কতা অবলম্বন করতেছেনা। দেখতেছি সবাই ঠিক আগের মতো বিভিন্ন দোকান পাটে রাস্তা ঘাটে বসে আড্ডা দিচ্ছে। বিভিন্ন জায়গায় মানুষ জড়ো হয়ে আড্ডা দেয়। আমার জানামতে পুরা কক্সবাজার লক ডাউন করেছেন আমাদের শ্রদ্ধেয় ডিসি মহোদয়। আমাদের উখিয়া উপজেলাও ঠিক কক্সবাজার জেলার আওতাধীন। কিন্তু আমাদের গ্রাম এবং পাশ্ববর্তী উত্তর হাজির পাড়ায় দেখতেছি ঠিক আগের মতো মানুষ চলাফেরা করে। এক এলাকা থেকে অন্য এলাকায় ঘুরাঘেরা করে। তো আমরা এখন খুবই বিপদজনক পরিস্থিতিতে আছি। স্যার / মেডাম আমরা বাঁচতে চাই। এখন আপনাকে একটাই অনুরোধ করব, বানু বিবি , বানু বিবির ছেলে আবু তাহের ও বানু বিবির নাতির পাশ্ববর্তী পরিবার সহ আমাদের রাজা পালং ইউনিয়ন সম্পূর্ণ লক ডাউনের বৈশিষ্ট্য গুলো পুরাপুরি বিস্তার চাই। আমাদের এলাকা এবং উত্তর হাজির পাড়া সহ বিভিন্ন এলাকায় যারা বেকার দোকান পাট খুলে সাধারণ মানুষদের আড্ডা দেওয়ার সুযোগ করে দে তাদের দোকান গুলো সম্পূর্ণ রূপে বন্ধ করা হোক। অন্যথায় আমাদের জন্য সেই দোকান পাট গুলো বড় ধরণের বিপদ জনক হয়ে দাড়াবে।

পরিশেষে একটি প্রস্তাব তিন করোনা রোগীর সংস্পর্শে আসা বন্ধু বান্ধব আত্মীয় স্বজনদের দোকানদারদের করোনা টেস্ট করে হোমকোয়ারেনটাইনের নিশ্চিত করুন।

আমাদের প্রাপ্তিতে ঘাটতি অনেক।তবে উখিয়া আপনার কাছ থেকে অধিক পেয়েছে,আপনি উখিয়ার মনের কথা বুঝেন বলেই নেতৃত্ব শুণ্যে উখিয়া এখনও আপনার পাশে।

Please follow and like us:

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..