সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ০২:১৫ অপরাহ্ন

News Headline :

নাসিরনগরে এক পরিবারের ৪ জন করোনা যুদ্ধে জয়ী

সময়ের সংবাদ ডেস্ক
  • Update Time : বৃহস্পতিবার ৩০ এপ্রিল, ২০২০
  • ১০৭ বার পঠিত

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ 

৩০ এপ্রিল ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগরের প্রথম করোনা আক্রান্ত হয় মালয়েশিয়া ফেরত শাহ আলম। পরে শাহ আলমের নিজ বাড়ি পূর্বভাগের মকবুলপুরের পরিবারের অন্য সকলের নমুনা সংগ্রহ করে আইইডিসিআরে পাঠায় নাসিরনগর উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স।

IEEDCR এর নমুনা পরীক্ষায় মৃত শাহআলমের পরিবারের পাঁচজনের করোনা পজেটিভ হয়। করোনা পজেটিব যাদের এসেছে তারা হলো মৃত শাহ আলমের স্ত্রী শারমীন আক্তার, ৩ বছরের শিশু কন্যা রেখা আক্তার, মৃত শাহ আলমের তিন ভাই রকিবুল আলম, রবিউল আলম ও নূরে আলম। পরে তাদের কে দ্রুত আইইডিসিআরের তত্ত্বাবধানে আইসোলেশনে রাখা হয়। বেশ কিছুদিন করোনার সাথে যুদ্ধ করে ৪ যুদ্ধা ( নূরে আলম বাদে) সুস্থ হয়ে বীরের বেশে বাড়ি ফিরেন।

মৃত শাহ আলমের পিতা মোঃ আব্দুল গফুর মিয়া আনন্দের সাথে জানান আমার ছেলে রবিউলের ফোন পেয়ে তাদের সুস্থতার খবর জেনে পৃথিবীর সবচেয়ে সুখী আমি । তিনি বলেন রবিউল জানায় সম্ভব হলে আজকেই বাড়ি ফিরছে তারা। ইতিমধ্যেই আইইডিসিআরের ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। গফুর মিয়া জানান সদ্য করোনা পজেটিভ অপর পুত্র নূরে আলম আইসোলেশনে আছে। আল্লাহর রহমতে সেও সুস্থ হয়ে যাবে।

এইদিকে মৃত শাহ আলম করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যবরন করলে তার নিজ বাড়ি মকবুলপুরে ১৪ টি এবং শ্বশুরবাড়ি জেঠাগ্রামে ১১ টি পরিবারকে লকডাউন ঘোষণা করে সরকার। গফুর মিয়া জানায় আমরা তো বেরোতে পারছিনা। আমাদের জীবনধারণের প্রয়োজনীয় রসদ খুব স্বল্প পরিমাণে খুব কষ্টে আছি। পরে তিনি নাসিরনগর সহ সারা দেশবাসীর নিকট কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন সকলের দোয়ায় আমার পরিবারের করোনা আক্রান্ত সদস্যরা সুস্থ হয়েছে।

এদিকে আজ আরও নতুন একজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা বিষয়টি নিশ্চিত করেন। আক্রান্ত ব্যক্তি নাসিরনগর সদর ইউনিয়নের কুলিকুন্ডা গ্রামের দুধ মিয়ার ছেলে মাসুক মিয়া (৩৫)।

 

Please follow and like us:

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..