মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ০৫:০৮ পূর্বাহ্ন

সুনামগঞ্জের তাহিরপুরের শনি ও মাটিয়ার হাওরে নিজ অর্থায়নে ৮ শতধিক শ্রমিকদের মাঝে ইফতার সামগ্রী দিলেন জেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি সেলিম আহমদ

সময়ের সংবাদ ডেস্ক
  • Update Time : মঙ্গলবার ২৮ এপ্রিল, ২০২০
  • ১২৮ বার পঠিত

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ

হাওরে ধান কাটা রোজাদার অসহায় ৮ শতাধিক শ্রমিকদের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করেছেন জাতীয় শ্রমিকলীগ সুনামগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি মোঃ সেলিম আহমদ।

মঙ্গলবার দিনব্যাপী জেলার তাহিরপুর উপজেলার শনির হাওর ও মাটিয়ার হাওরের বিভিন্ন জায়গাতে ঘুরে দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে সুনামগঞ্জ জেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি মোঃ সেলিম আহমদ তার ব্যাক্তিগত অর্থায়নে ৮ শতাধিক শ্রমিকের মাঝে ১৫০ কেজি খেজুর,১৫০ কেজি ট্যাংক,১৫০ কেজি মালটা, ৮০০ শত প্যাকেট মুড়িসহ ইফতার সামগ্রী বিতরণ করেন তিনি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা শ্রমিকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক দিদারুল বাশার অপু ও জেলা শ্রমিকলীড়ের সাংগঠনিক সম্পাদক রিংকু চৌধুরী,শ্রæমকলীগ নেতা ফরহাদ মিয়া, মতিউর রহমান প্রমুখ।

জাতীয় শ্রমিকলীগ সুনামগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি মোঃ সেলিম আহমদ বলেছেন,এই করোনা ভাইরাসের প্রভাব যখন দেশে ছড়িয়ে পড়ার মতো অবস্থা দেখা দেয় তখনই জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সারাদেশে সরকারের দূর্যোগ ও ত্রান মন্ত্রনালয়ের মাধ্যমে প্রত্যন্ত অঞ্চলের কৃষক, শ্রমিক, দিনমুজুর ও অহসায় কর্মহীন মানুষদের মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদানের ঘোষনা দেন। এরপর থেকেই ঘরবন্দি মানুষদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ঘরে থাকার আহবান জানানোর পাশাপাশি ঘরে ঘরে খাদ্য সহায়তা প্রদান অব্যাহত রাখেন। তিনি আরো বলেন আমরা ১৯৭১ সালে জাতির পিতার ডাকে সাড়া দিয়ে হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে অস্ত্র হাতে তুলে নিয়ে যুদ্ধ করে দেশটাকে স্বাধীন করা হয়েছিল। আজ তার সুযোগ্য উত্তরসূরী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ যখন বিশ্বে একটি উন্নয়নের রোল মডেল ঠিক তখনই বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাসের প্রকোপ বাংলাদেশে ছড়িয়ে পড়ে। তিনি আরো বলেন যে আমরা জাতির পিতার নেতৃতে মুক্তিযুদ্ধ করে যদি দেশ স্বাধীন করতে পরি তাহলে আমরা তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে করোনা ভাইরাসের মতো মহামারীকে পরাজিত করে বাংলাদেশের মানুষের জয়লাভ করবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি হাওরের জেলা সুনামগঞ্জে এই বোরো মৌসুমে শ্রমিক সংকট নেই উল্লেখ করে আরো বলেন জেলা প্রশাসন,সরকার দলীয় আওয়ামীলীগ,শ্রমিকলীগ,যুবলীগ ছাত্রলীগসহ সহযোগি সংগঠনের সকল নেতাকর্মীদের ধান কাটা উৎসবে অংশগ্রহনের ফলে কৃষকদের ধান সময়মতো ঘরে উঠবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

Please follow and like us:

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..