মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ০৪:৩৩ পূর্বাহ্ন

সিরাজগঞ্জ কারাগারে আইসোলেশন ওয়ার্ড স্থাপন

সময়ের সংবাদ ডেস্ক
  • Update Time : রবিবার ১৯ এপ্রিল, ২০২০
  • ৬০ বার পঠিত

সিরাজুল ইসলাম রায়হান, ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি, সময়ের সংবাদ:

করোনাভাইরাস থেকে বন্দিদের সুরক্ষায় সিরাজগঞ্জে কারাগারে সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করা হয়েছে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় সিরাজগঞ্জ কারাগারে চারটি আইসোলেশন ওয়ার্ড স্থাপন করা হয়েছে।

পাশাপাশি নতুন বন্দিদের অভ্যন্তরে নেওয়ার ব্যাপারে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করছেন এবং তাদের আলাদা করে রাখছেন কারা কর্তৃপক্ষ। তারপরেও নতুন আসামি কারাগারে আসায় করোনাভাইরাসের ঝুঁকি বাড়ছে বলে মনে করছেন কারা কর্তৃপক্ষ।

এ ছাড়া ১০০ আসামি হাজতির নাম একবারে মুক্তি বা সাময়িকভাবে মুক্তির প্রস্তাব করে কারা অধিদপ্তরে পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

সিরাজগঞ্জ কারাগার সূত্রে জানা গেছে, সিরাজগঞ্জ কারাগারে ৩০০ বন্দি ধারণ ক্ষমতা। বৃহস্পতিবার বন্দির সংখ্যা ছিলো এক হাজার ১৮০ জন।

এর মধ্যে গত ২৮ মার্চ থেকে ১৯ এপ্রিল পর্যন্ত কারাগারে নতুন ৮০ জন আসামি এসেছেন। প্রতিদিন গড়ে ৫ জন করে নতুন আসামি কারাগারে আসছেন। মামলা কার্যক্রম বন্ধ থাকায় প্রতিদিনই কারাগারে আসামির সংখ্যা বাড়ছে।

এ কারণে কারাগারে সামাজিক দূরত্বের বিষয়টি বজায় রাখা খুবই কঠিন। তারপরেও নতুন আসামি কারাগারে আসায় করোনাভাইরাসের ঝুঁকি বাড়ছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

এবিষয়ে সময়ের সংবাদ কে সিরাজগঞ্জ কারাগারের জেল সুপার আল মামুন বলেন, ইতোমধ্যে স্বজনদের সঙ্গে আসামিদের দেখা করা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। বিশেষ প্রয়োজনে ল্যাল্ড ও মোবাইল ফোনে কথা বলার প্রক্রিয়া চালু করা হয়েছে।

প্রতিদিনই নতুন আসামি বাড়ছে যার কারনে কারাগারে নতুন আসামি আসায় করোনাভাইরাসের ঝুঁকি বাড়ছে বলে মনে করছেন তিনি।

জেল সুপার সময়ের সংবাদ কে আরো জানান, শরীরের তাপমাত্রা মেপে বন্দিদের করোনা সংক্রমণ শনাক্তের জন্য সরকার থেকে ইনফ্রারেড থার্মোমিটার মেশিন দেওয়া হয়েছে। নতুন বন্দি আসার পর তাদের শরীরের তাপমাত্রা মেপে দেখা হয়। বাধ্যতামূলক ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে রেখে তবেই ওয়ার্ডে স্থানান্তর করা হয়।

Please follow and like us:

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..