বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ১১:৪৪ পূর্বাহ্ন

নাটোরের বিভিন্ন গ্রাম স্বেচ্ছায় লকডাউন

সময়ের সংবাদ ডেস্ক
  • Update Time : শুক্রবার ১০ এপ্রিল, ২০২০
  • ২১২ বার পঠিত

মোঃরাজিবুল ইসলাম বাবু, স্টাফ রিপোর্টারঃ সময়ের সংবাদ: 

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলার জামনগর ইউনিয়নের বেশ কয়েকটি গ্রামের বাসিন্দারা, হাঁপানিয়া ফকিরপাড়া, মোল্লাপাড়া, ঘোষপাড়া, মন্ডল পাড়া, এই চরটি গ্রমে আজ সন্ধায় স্বেচ্ছায় লকডাউন ঘোষণা করেছে।

গ্রামের গুরুত্বপূর্ণ ডাল সড়ক প্রবেশপথ খুটি পুতে বাঁশ দিয়ে বেধেঁ বন্ধ করে দিয়েছে গ্রামবাসী ।

গ্রামবাসী সময়ের সংবাদককে বলেন, স্বেচ্ছায় লকডাউন ঘোষিত গ্রামগুলো থেকে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কেউ বের হবেন না।

আবার বাইরের কাউকেও প্রবেশ করতে দেয়া হবেনা বলে জানায় গ্রামবাসী।

শুক্রবার ( ১০ সেই এপ্রিল) সন্ধায় এসব গ্রামে গিয়ে লকডাউনের এ দৃশ্য চোখে পড়ে।

সময়ের সংবাদ এর প্রতিবেদক কে স্থানীয়রা জানান, সরকারি নির্দেশনা ভেঙে আশপাশের গ্রাম থেকে লোকজন আড্ডা দিতে আসছেন, এবং ফরিদপুর, ঢাকা সহ বিভিন্ন জায়গায় হতে অনেক মানুষ রাতের আধাঁরে আসতে দেখা যাচ্ছে, তারা গ্রামের মানুষে মাঝে ঘুরাঘুরি করছে।

এতে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি বাড়ছে।
তাই আমরা নিজেরাই লকডাউন ঘোষণা করেছি।

গ্রামে গিয়ে দেখা যায়, স্থানীয় নবীনদের উদ্দোগে স্থানীয় যুবকেরা গ্রামগুলোর প্রবেশপথে বাঁশ দিয়ে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছেন। সেখানে একটি নোটিশ টাঙিয়ে দিয়েছেন।

নোটিশে লেখা আছে, বহিরাগতদের এবং দূর হতে আশা ব্যাক্তিদের গ্রামে প্রবেশ নিষেধ।

গ্রামের প্রবেশপথে যুবকেরা নিরাপদ দূরত্ব রেখে অবস্থান করছেন।

তারা অপ্রয়োজনে গ্রামের বাইরে যেতে নিরুৎসাহিত করছেন।

এদিকে গ্রমের কিছু লোকজন যুবকদের এই লকডাউন করেছে কেন এ বিষয়ে তারা যুবকদের বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতি দেখিয়েছে।

ওই গ্রামের যুবকেরা মুঠোফোনে লালপুর, বাগাতিপাড় সংসদ সদস্য মোঃ শহিদুল ইসলাম বকুল এমপি, নাটোর -১ বিষয়টা জানলে তিনি বলেন, তোমার সচেতন মূলক কাজ করে যাও কিছু লোক ভালো কাজে বাঁধা দেবে।

তিনি আরো বলেন, এলাকাবাসী সকলে সচেতন না হলে প্রশাসন, মিডিয়া, একা কিভাবে রোধ করবে।

Please follow and like us:

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..