মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ০৫:৩৫ পূর্বাহ্ন

হজ্ব যাত্রীদের সেবাই তার লক্ষ্য

গোলাম মোস্তফা, নিজস্ব প্রতিবেদক, সময়ের সংবাদ:

ইসলামের ৫টি স্তম্ভের মধ্যে অন্যতম ১টি হজ্ব। হজ্ব পালনকারীরা আল্লাহর মেহমান। ইসলামের পরিভাষায় সার্মথবান প্রত্যেক মুসলামানের উপর পবিত্র হজ্ব পালন করা ফরয। বাংলাদেশের ধর্মপ্রান মুসলামানরা আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনে প্রতি বছর তাদের কষ্টে উর্পাজিত অর্থ ব্যয় করে হজ্ব পালনের উদ্দেশ্যে পবিত্র নগরী মক্কাতে যান। কিন্ত এর মধ্যে অঙ্গতার কারনে সিংহ ভাগ হজ্বযাত্রী হজ্বের  নিয়ম-কানুন সঠিক ভাবে পালনে ব্যর্থ হন। আর এই বিষয়টি চিন্তা করেই হজ্বযাত্রীদের সেবার জন্য নিজেকে উৎর্সগ করেন সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার বিনসাড়া গ্রামের মৃত জালাল উদ্দিন সরকারের সন্তান মাওলানা আলহাজ্ব আব্দুস সালাম। তিনি রাজশাহী হজ্ব এন্ড ওমরা গ্রপের আওতায় বিগত ২০১৬ সাল হতে দীর্ঘ আট বছর যাবত চলনবিল অঞ্চলের হাজারো ব্যক্তিকে হজ্বের আরকাম আহকাম সঠিক ভাবে পালনের মধ্যে দিয়ে পবিত্র হজ্বব্রত পালন করিয়ে এনেছেন। সোনালী ব্যাংকের প্রাক্তন ম্যানেজার আব্দুল কাদের, প্রিন্সিপাল অফিসার মো. আব্দুল আজিজ,পূবালী ব্যংকের অবসরপ্রাপ্ত সিনিয়র অফিসার মো. আলী আসরাফ, অবসরপ্রাপ্ত উপজেলা আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা মো. আছের উদ্দিন, উপজেলা পরিসংখ্যান অফিসার মো. আবু বক্কর সিদ্দিক সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মুনসুর রহমান তারাসহ অনেক হাজ্বী এপ্রতিবেদককে জানান, আমরা বাংলা ও ইংরেজীতে পারদর্শী হলেও ইসলামী শিক্ষায় অতটা পারদর্শী নয়। তাই হজ্বের আহকাম আরকাম সঠিক ভাবে পালনের জন্যই মাওলানা আব্দসু সালামের সাথে হ্জ্বব্রত পালন করেছি। আল্লাহর ইচ্ছায় ওনার তদারকীতে আমরা সঠিক ভাবে হজ্বের সকল বিষয়াদি আদায় করেছি। চলনবিল এলাকায় মাওলানা আব্দুস সালাম হজ্বযাত্রীদের সেবক হিসেবে পরিচিত
এদিকে মাওলানা আব্দুস সালামের ভাল ওয়ায়েজীন হিসেবে রয়েছে সুখ্যাতি। তিনি দীর্ঘ দিন যাবত কুরআন হাদীসের আলোকে ওয়াজের মাধ্যমে মানুষের সেবা করে যাচ্ছেন। ।